সাস্থ্য সচেতদের জন্য পাঁচটি মিষ্টির রেসিপি

পাঁচটি সহজ মিষ্টির রেসিপি সাস্থ্যসচেতন দের জন্য

মিষ্টি প্রেমী মানুষ বোধহয় অনেকেই আছেন আমার মতো, অথচ এখন সাস্থ্যের দিকেও খেয়াল আমরা কম বেশী অনেকেই রাখি। তাই এই সাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই আমরা ইচ্ছে করলেও আমাদের পছন্দের মিষ্টিটা খেতে পারি না। তাই আজকের স্পেসাল পাঁচটি  রেসিপি থাকলো আপনাদের জন্য। যা আপনি বানিয়ে নিতে পারবেন বাড়িতেই যখন ইচ্ছে। চলুন তবে দেখে নেই রেসিপি গুলো ঝটপট। 

কাঢা মিষ্টি (kadah sweet)

গুরুদুয়ারার একটি বিখ্যাত মিষ্টি হল এই কাঢা।

উপকরণঃ

প্রক্রিয়াঃ

প্রথমে একটি পাত্রে ঘি গরম করে তার মধ্যে আটা দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে নিতে হবে। এবার একটি অন্য পাত্রে জল নিয়ে তা গরম হয়ে এলে তার মধ্যে গুড় দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণ ভালো করে ফুটে উঠলে তার মধ্যে ওই ঘিয়ে ভাজা আটা দিয়ে দিতে হবে। এবার পুরোটা ভালো করে ফুটে এলে যখন জল শুকিয়ে আসবে তখন ওপর থেকে সামান্য এলাচ গুড়ো ছড়িয়ে পরিবেশন করুন বিখ্যাত কাঢা মিষ্টি।

গাজরের হালুয়া

বাজার থেকে কেনা গাজরের হালুয়া তো খেয়েই থাকবেন এবার বাড়িতে বানিয়ে দেখুন।

উপকরণঃ

প্রক্রিয়াঃ

একটি পাত্রে সামান্য ঘি গরম করে নিয়ে তার মধ্যে যোগ করুন গ্রেড করা গাজর ও একটি এলাচ। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে নিয়ে গাজরের রং আর গন্ধ দুটোই বেরোতে শুরু করলে এক কাপ দুধ ও গুড় তার সাথে যোগ করে ফুটিয়ে নিন ভালোভাবে। ব্যাস, তৈরী আপনার গাজরের হালুয়া।

ওয়ালনাট ডিলাইট

এটা শুনতে অনেক আহামরি হলেও সবথেকে সোজা রেসিপি হল এটি।

উপকরণঃ

প্রক্রিয়াঃ

দুই চামচ দই এর সাথে আখরোট ও খেজুর ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে ফ্রিজে রেখে দিতে হবে কিছুক্ষণ এর জন্য। তারপর ফ্রিজ থেকে বের করে ওপরে কিছুটা মধু দিয়ে পরিবেশন করুন নিজের ইচ্ছেমতো।

ক্ষীর বা পায়েস

কম বেশী প্রত্যেকেরই খুব প্রীয় হল এই পায়েস বা ক্ষীর। যেকোন শুভ অনুষ্ঠানে এর জুড়ি মেলা ব ভার।

উপকরণঃ

প্রক্রিয়াঃ

দুধকে গরম করতে বসিয়ে দিয়ে তার মধ্যে যোগ করতে হবে ভেজানো ব্রাউন রাইস। তা কিছুক্ষণ ফুটিয়ে নিয়ে অর্থ্যাত চাল সেদ্ধ হয়ে এলে এবার দিতে হবে গুড়। সব শেষে এর ওপর কিছুটা কেশর ও এলাচ গুড়ো দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।

প্যান কেক

প্যান কেক হল একটা খুব সোজা ব্রেকফার্ষ্ট রেসিপি।

উপকরণঃ

প্রক্রিয়াঃ

প্রথমে একটি পাত্রে কলাকে ভালো করে চটকে নিয়ে  তার মধ্যে দুধ, ডিম, ও আটা কে ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে একটা স্মুথ মিশ্রণ তৈরী করে নিতে হবে। এবার একটি তাওয়া বা প্যান কে ভালো করে গরম করে নিয়ে তার মধ্যে কিছুটা ঘি ব্রাশ করে নিয়ে  হাতার সাহায্যে অল্প অল্প করে  দিতে হবে। এক পাশ হয়ে এলে অন্য পাশটি উল্টে নিয়ে বাদামি রং ধরে গেলে কিছুটা মধু ছড়িয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

এই রইল চটজলদি কিছু মিষ্টির রেসিপি। তবে, আর দেরী কিসের আপনার পছন্দের মিষ্টি খেতে গেলে আর নো ভাবনা। ভালো খান , ভালো থাকুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

one × one =

Pin It on Pinterest

Share This